Wednesday, April 17, 2024
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
Homeবাংলাদেশহাদিসুরের লাশ নিজ বাড়িতে : শোকের মাতম

হাদিসুরের লাশ নিজ বাড়িতে : শোকের মাতম

ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর রকেট হামলায় নিহত ‘বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজের প্রকৌশলী হাদিসুর রহমান আরিফের (৩৪) মরদেহ নিজ বাড়ি বরগুনার বেতাগী উপজেলার কদমতলা গ্রামে পৌঁছেছে। সোমবার (১৪ মার্চ) রাত ৯টা ৪৫ মিনিটে লাশবাহী ফ্রিজিং গাড়িতে করে তার মরদেহ নিয়ে আসা হয়। এ সময় স্বজনদের আহাজারিতে এলাকার পরিবেশ ভারি হয়ে ওঠে।

এর আগে দুপুর বেলা ১২টা ২০ মিনিটে টার্কিশ এয়ারলাইনসের একটি কার্গো বিমান হাদিসুরের মরদেহ নিয়ে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে দুপুর ২টায় হাদিসুরের মরদেহ নিয়ে বরগুনার উদ্দেশ্য রওনা হন স্বজনরা। তার মরদেহ ফ্রিজিং গাড়িতে সংরক্ষিত থাকবে। আগামীকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় জানাজা শেষে তার দাফন সম্পন্ন হবে।

হাদিসুরের মরদেহ বাড়িতে আসার কথা শুনে দুপুর থেকেই আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু ও প্রতিবেশীরা তার বাড়িতে আসতে শুরু করেন। রাত ৯টা ৪৫ মিনিটে তার মরদেহ বাড়িতে পৌঁছালে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। কান্নায় ভেঙে পড়েন স্বজনরা। হাদিসুরের মা, বোন ও ভাইয়েরা বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন। মরদেহ আসার আগেই সেখানে অবস্থান করেন বেতাগী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুহৃদ সালেহীন।

হাদিসুরের খালাতো ভাই সোহাগ হাওলাদার বলেন, সকাল থেকে বিমানবন্দরে অপেক্ষা করেছি আমরা। দুপুরে ওর (হাদিসুর) লাশ আসে। হাদিসুরের সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক ছিল। কয়েকদিন পরপর ভিডিও কলে আমাদের কথা হত। আমি এখন কার সঙ্গে কথা বলব। বেতাগী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুহৃদ সালেহীন বলেন, প্রকৌশলী হাদিসুরের মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। কোনো মা-বাবাকে যেন সন্তানের এমন মৃত্যু না দেখতে হয়। হাদিসুর ছিলেন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। উপজেলা ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে হাদিসুরের পরিবারকে সব ধরনের সহায়তা করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২ মার্চ রাতে ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে আটকে পড়া বাংলাদেশি জাহাজ এমভি বাংলার সমৃদ্ধিতে রকেট হামলা চালায় রুশ সেনারা। এ হামলায় জাহাজের প্রকৌশলী হাদিসুর রহমান আরিফ নিহত হন। পরদিন ৩ মার্চ সন্ধ্যায় অক্ষত ২৮ নাবিক এবং হাদিসুরের মরদেহ ইউক্রেনের একটি বাংকারে নেওয়া হয়। সেখানে হাদিসুরের মরদেহ রেখে বাকি নাবিকদের নিরাপদে রোমানিয়ায় নিয়ে যাওয়া হয়। গত ৯ মার্চ দুপুর ১২টার দিকে তারা দেশে ফিরেছেন।

হামলায় নিহত প্রকৌশলী হাদিসুর রহমান আরিফ বরগুনার বেতাগী উপজেলার হোসনাবাদ ইউনিয়নের কদমতলা গ্রামের রাজ্জাক হাওলাদারের ছেলে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments