Thursday, February 29, 2024
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
Homeবাংলাদেশনরসিংদীতে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ : আটক ২

নরসিংদীতে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ : আটক ২

নরসিংদী: নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় স্বামীকে মারধর করে আটকে রেখে স্ত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দুই ধর্ষককে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলেন-পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার টেঙ্গরপাড়া গ্রামের মৃত শাহ আলমের ছেলে রাজিব (৩০) ও চামড়াব গ্রামের মো. নজরুল ইসলামের ছেলে রিফাত (২০)। রোববার (৬ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইলিয়াস।
পুলিশ জানায়, শনিবার বিকেলে পলাশের জনতা জুট মিলের এক কর্মচারী স্ত্রীকে নিয়ে ঘোড়াশাল ফ্লাগ রেলস্টেশনে ঘুরতে যায়। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ওই রেলস্টেশনের ভ্রাম্যমাণ দোকান থেকে তারা ঝালমুড়ি কিনে খাচ্ছিলেন। এ সময় টেঙ্গরপাড়ার রাজিব ও রিফাতসহ অজ্ঞাত আরও এক বখাটে তারা স্বামী-স্ত্রী কিনা তা যাচাইয়ের জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে ওই নারীর স্বামীকে তারা মারধর করে ঘোড়াশাল ফ্ল্যাগ রেলস্টেশন থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে টান স্টেশনের কাছাকাছি রেললাইনের ওপরে নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। এসময় বখাটেরা ওই নারীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।
এদিকে স্বামী কোনো উপায় না পেয়ে মোবাইল ফোনে ৯৯৯ কল করেন। পরে ঘোড়াশাল পুলিশ ফাঁড়িকে ঘটনার বিষয়টি জানানো হয়। খবর পেয়ে শনিবার রাতে ঘোড়াশাল ফাঁড়ির পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে দুই বখাটে রাজিব ও রিফাতকে আটক করে।
ঘোড়াশাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পুলিশ পরিদর্শক) জহিরুল আলম বলেন, ঘটনা জানার সঙ্গে সঙ্গে আমরা অভিযান চালিয়ে দু’জনকে আটক করি। তাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা জানতে পেরেছি ঘটনার সঙ্গে তিনজন জড়িত ছিল। আমরা দু’জনকে আটক করে নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশেল কাছে হস্তান্তর করেছি। ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments