Thursday, June 13, 2024
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
Homeবাংলাদেশঢাকাপ্রেমিকার হাতে প্রাণ গেল মিরাজের!

প্রেমিকার হাতে প্রাণ গেল মিরাজের!


পরিবারের পক্ষ থেকে বিয়ের দিন তারিখ ঠিক করে মেয়েও দেখা প্রায় শেষ হয়েছে। জমকালো অনুষ্ঠানে দিয়ের দিন হিসাবে আগামি ১৭ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) ঠিক করা হয় কিন্তু বিয়ের দুদিন পূবেই (মঙ্গলবার) প্রেমিকার বর্তমান প্রেমিকের হাতে প্রাণ দিতে হল মিরাজকে। ঘটনাটি বগুড়া পৌরপার্কে প্রেমিকার নতুন প্রেমিকের ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারায় মিরাজ। নিহত মিরাজ (১৮) শহরের বৃন্দাবনপাড়া এলাকায় আব্দুর রহমানের ছেলে। সে পেশায় একজন মটর মেকান
এ বিষয়ে মিরাজের বড় ভাই রাশেদুল ইসলাম এবং মেঝো ভাই আতাউর রহমান জানান, শহরের বাদুরতলা এলাকার এক মেয়ের সাথে সম্পর্ক ছিল।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মেয়েটি মিরাজের সাথে সম্পর্ক ভেঙে গাবতলী উপজেলার অন্য এক ছেলের সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলে। তারপর থেকে সেই ছেলেটি ফেসবুক ও মুঠোফোনে প্রতিনিয়ত মিরাজকে হুমকি দিয়ে আসছিলো। যে মেয়েটির সাথে মিরাজের সম্পর্ক ছিল তার নতুন প্রেমিক পার্কে মীমাংসার জন্য মিরাজকে ডেকে নেয়। মিরাজ ও তার বন্ধু নাজমুল সেখানে মীমাংসার জন্য যায়। পরে অতর্কিকভাবে মিরাজের সাবেক প্রেমিকার বর্তমান প্রেমিক তার ৪ থেকে ৫ জন বন্ধুকে নিয়ে হামলা করে ছুরিকাঘাত করে। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ঘটনাস্থল থেকে তারা পালিয়ে যায়। পরে মিরাজকে উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মিরাজকে মৃত ঘোষণা করে। সন্ধ্যার একটু আগে তাদের ছোট ভাই মিরাজের খুনের সংবাদ পান পরিবার। তাদের ধারণা মিরাজের ফোনেই খুনির তথ্য পাওয়া যাবে।
মেঝো ভাই আতাউর রহমান কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে বলেন, রাতে তিন ভাইয়ের এক সাথে ভাত খাওয়ার কথা। বৃহস্পতিবার বিয়ের জন্য কুড়িগ্রামে যাওয়ার আয়োজন চলছে। এসব কিছু ছেড়ে অকালেই চলে যেতে হলো ভাইকে। তারা খুনের সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনার জোর দাবি জানান।
বগুড়া পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড যুবলীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মনিরুল ইসলাম জানান, মিরাজ তার ওয়ার্ডের যুবলীগের একজন সক্রিয় সদস্য ছিলেন। তিনিও হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবী জানান।
এ ঘটনায় মিরাজের বন্ধু মোহাম্মাদ নাজমুলও (১৮) ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন। তিনিও বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। মিরাজের লাশ ময়না তদন্তের জন্য এখন মেডিকেলেই আছে।
এ বিষয়ে বগুড়া সদর থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) সেলিম রেজা জানান, আমরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি ত্রিভুজ প্রেমের বলি হয়েছেন মিরাজ। হত্যার সাথে জড়িতদের কাউকে এখন পর্যন্ত পুলিশ গ্রেপ্তার করেনি। এ ঘটনায় এখনও কোন মামলা হয়নি।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments